Uncategorized

অবশেষে আপসে ইমরান খান

চলমান অশান্ত রাজনৈতিক পরিস্থিতি ও সরকারের পিটিআইবিরোধী অবস্থানের পরিপ্রেক্ষিতে আপসের উদ্যোগ নিয়েছেন পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। অনেকটা বাধ্য হয়েই তিনি এ পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছেন।

বৃহস্পতিবার লাহোরের জামান পার্কের এক ভিডিও বার্তায় ইমরান খান বলেন, দেশের দীর্ঘস্থায়ী রাজনৈতিক অস্থিরতার অবসান ঘটাতে সরকারের সঙ্গে আলোচনার জন্য একটি কমিটি গঠন করছেন তিনি। সংকট সমাধানে তিনি রাজনীতি ছাড়তেও প্রস্তুত। ডন।

পাকিস্তানের সাবেক এ প্রধানমন্ত্রী দেশটির আগাম নির্বাচনের বিষয়েও সুর নরম করেছেন। যদি তার প্রস্তাব শাহবাজ শরিফের সরকার গ্রহণ করে তাহলে দেশটিতে রাজনৈতিক উত্তেজনা কমবে। এ ছাড়া, দেশটির ভঙ্গুর অর্থনীতিও কিছুটা সচল হবে। পিটিআই দলের ইউটিউব চ্যানেলে ইমরান খান বলেন, তারা যদি আমার আলোচনা কমিটিকে বলে যে তাদের হাতে একটি সমাধান আছে এবং আমাকে ছাড়াই দেশ ভালোভাবে চলবে, তাহলে আমি তা মেনে নেব। এ ছাড়া, তারা যদি মনে করে যে অক্টোবরে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলে পাকিস্তানের উপকার হবে, তবে ওই বিষয়টিও আমি মেনে নেব। আমি দরকার পড়লে রাজনীতি ছেড়ে দেব। ইমরান খান বর্তমানে পাকিস্তানি পার্লামেন্টের সদস্য নন। তবে তার পরেও তিনি সরকারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন আন্দোলনে নেতৃত্ব দিচ্ছেন।

গত বছর একটি অনাস্থা ভোটে শাহবাজ শরিফের নেতৃত্বে বিরোধী দলগুলো একটি জোট গঠন করে এবং ইমরান খানের সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করে। এরপর পিটিআই দলের প্রধান দেশে নতুন নির্বাচনের আহ্বান জানিয়ে আসছেন। তিনি অভিযোগ করেছেন যে শাহবাজ শরিফ, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও পাকিস্তানি সামরিক বাহিনী তাকে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে অপসারণের ষড়যন্ত্র প্রণয়ন করেছে। তবে সংশ্লিষ্টরা এমন অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

Related Articles

Back to top button